Logo
নোটিশ :
সারাদেশের জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাসভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭০৭-৬৫৫৮৯৪    dailyekushershomoy@gmail.com
সংবাদ শিরনাম :
দ্রব্যমূল্য সিন্ডিকেটের নিকট জিম্মি হয়ে পড়েছে সাধারন মানুষ——- সুজন মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা নগরীর লুৎফর রহমান সড়ক থেকে মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ দুমকিতে বিডি ক্লিনের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা মেহেন্দিগঞ্জের দরিচর খাজুরিয়া নির্বাচনে নৌকা প্রতিক প্রত্যাশি আনোয়ার কুয়াকাটা পর্যটন নগরী উন্নয়নে বাঁধায় কতিপয় দুষ্কৃতিকারী -সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেয়র আনোয়ার। চট্টগ্রাম কোর্ট বিল্ডিং (পরীর পাহাড়) এলাকা পরিদর্শনে প্রধান মন্ত্রীর মুর্খ্য সচিব বরিশালে ব্যাংক কর্মকর্তা হত্যার ঘটনায় আরো একজন ডাকাত সদস্য আটক চট্টগ্রামে সড়ক সংস্কারের দাবিতে মানববন্ধন
সানি লিওনের ছেলের ‘বাবা’ হওয়া নিয়ে যা বললেন হাশমি

সানি লিওনের ছেলের ‘বাবা’ হওয়া নিয়ে যা বললেন হাশমি

সাতপাকে বাধা পড়েননি কোনওদিন, অথচ ২০ বছরের ছেলের বাবা-মা ইমরান হাশমি ও সানি লিওন! – এমন খবরে রীতিমত হাস্যরসের সৃষ্টি হয়েছে ইন্টারনেট জুড়ে।

তবে এ নিয়ে মুখ খুলেছেন ইমরান হাশমি নিজে। এই ছেলের সঙ্গে কোনোরকম সম্পর্ক থাকার কথা অস্বীকার করলেন ‘মার্ডার’ তারকা। তবে মন্তব্য করেননি ‘জিসম টু’ অভিনেত্রী।

এই সংক্রান্ত একটি নিউজ আর্টিকেল টুইট করে ইমরান হাশমি লেখেন, ‘আমি খোদার নামে শপথ করে বলছি, ও আমার সন্তান নয়।’ অভিনেতার পোস্টে অনুরাগীরা মন্তব্য করে অভিনেতার প্রতি সমর্থন জাহির করে। অনেকেই বলেন, এই সব ভুলভাল বিষয়কে বেশি পাত্তা না দিতে। কেউ আবার লেখেন, ভীষণ মজার ব্যাপার। অনেকেই এই খবরকে দিনের ‘সেরা জোক’ বলে উল্লেখ করেছেন।জানা যায়, ভারতে ২০ বছরের এক যুবকের বাবা-মায়ের নামের জায়গায় বলিউড অভিনেতা ইমরান হাশমি ও অভিনেত্রী সানি লিওনের নাম এসেছে। কলেজ এডমিট কার্ডে ইমরান হাশমি ও সানি লিওনের নাম আসায় ওই যুবককে নিয়ে কৌতুকের সৃষ্টি হয়।

আসলে বিহারের ওই ছাত্রটি ভারতের ‘বাবাসাহেব ভীমরাও আম্বেদকর বিহার বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন মুজাফরনগরের একটি কলেজের শিক্ষার্থী। বলিউড তারকা ইমরান হাশমি ও সানি লিওনের সন্তান নন। উত্তর বিহারের বাসিন্দা ওই কলেজ ছাত্রের অ্যাডমিট কার্ডে কেউ ইচ্ছাকৃতভাবেই বাবা-মায়ের নামের জায়গায় ইমরান হাশমি ও সানি লিওনের নাম বসিয়ে দিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

তবে এই কাজ কে করেছেন? সে বিষয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। ছাত্রটি নিজেও এমন কুকর্মে জড়িত থাকতে পারেন বলেও সন্দেহ করা হচ্ছে।

সম্প্রতি ইমরান-সানির ছেলের কলেজের অ্যাডমিট কার্ড ভাইরাল হতেই খবরটি প্রকাশ্যে আসে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *