Logo
নোটিশ :
সারাদেশের জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাসভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭০৭-৬৫৫৮৯৪    dailyekushershomoy@gmail.com
সংবাদ শিরনাম :
মাস্ক না পরলে শতভাগ আক্রান্তের আশঙ্কা

মাস্ক না পরলে শতভাগ আক্রান্তের আশঙ্কা

অনলাইন ডেস্কঃ
যারা সঠিকভাবে মাস্ক ব্যবহার করে না, তাদের মধ্যে কোভিড-১৯ আক্রান্তের ঝুঁকি আড়াই গুণ বেশি। রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)-এর গবেষণায় উঠে এসেছে এই তথ্য। এতে বলা হয়েছে, যারা বাসার বাইরে কখনো মাস্ক ব্যবহার করেন না, তাদের আক্রান্তের হার শতভাগ। আক্রান্তের আশঙ্কা হ্রাসের জন্য সঠিকভাবে মাস্ক ব্যবহারের পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে।

সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (ইউএস সিডিসি)-এর সহযোগিতায় পরিচালিত ফিল্ড এপিডেমিওলজি ট্রেনিং প্রোগ্রামের শিক্ষার্থীরা দেশের কোভিড-১৯ বাড়ার কারণ নির্ণয়ে একটি গবেষণা পরিচালনা করে। গত ১ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত এই গবেষণা পরিচালিত হয়। গবেষণায় দেশের ১৪৮ জন কোভিড-১৯ পজিটিভ রোগী এবং ২৪৫ জন সুস্থ অংশগ্রহণকারীর সাক্ষাৎকার গ্রহণ করা হয়। উপসর্গযুক্ত রোগীদের উপসর্গ শুরুর দিন থেকে এবং উপসর্গহীনদের নমুনা সংগ্রহের দিন থেকে আগের ১৪ দিনের সম্ভাব্য কারণসমূহ পর্যালোচনা করা হয়।

গবেষণায় বলা হয়েছে, সঠিকভাবে সব সময় মাস্ক ব্যবহার কোভিড-১৯ প্রতিরোধে একটি গুরুত্বপূর্ণ অস্ত্র। তাই আইইডিসিআর-এর পক্ষ থেকে জনস্বাস্থ্যগত বিধিনিষেধ চলাকালে এবং পরবর্তী সময়ে দেশের মানুষকে সঠিকভাবে মাস্ক পরার অনুরোধ করা হয়েছে।

আইইডিসিআর-এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বাড়ির বাইরে সব সময় সঠিকভাবে মাস্ক পরতে হবে। আশঙ্কাযুক্ত কোভিড-১৯ রোগীর সেবা করার সময় সুস্থ ব্যক্তিকে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। হাঁচি ও কাশি হলে বাড়ির ভেতরে ও বাইরে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। মাস্ক ব্যবহার শেষে অবশ্যই সঠিক নিয়ম মেনে ঢাকনা যুক্ত ময়লার ঝুড়িতে ফেলে দেওয়া উচিত। এ ছাড়া মাস্ক ব্যবহারের আগে সাবান-পানি দিয়ে অথবা অ্যালকোহলের তৈরি হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করতে হবে। মাস্ক দিয়ে মুখ ও নাক ভালোভাবে ঢেকে ফেলতে হবে এবং মাস্ক ও মুখের মধ্যে যেন কোনো ফাকা না-থাকে, সেটা নিশ্চিত করতে হবে। মাস্ক খোলার সময় মাস্কের ফিতা ধরে খুলতে হবে।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *