Logo
নোটিশ :
সারাদেশের জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাসভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭০৭-৬৫৫৮৯৪    dailyekushershomoy@gmail.com
সংবাদ শিরনাম :
দ্রব্যমূল্য সিন্ডিকেটের নিকট জিম্মি হয়ে পড়েছে সাধারন মানুষ——- সুজন মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা নগরীর লুৎফর রহমান সড়ক থেকে মাদ্রাসা ছাত্র নিখোঁজ দুমকিতে বিডি ক্লিনের মাসিক সভা অনুষ্ঠিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা মেহেন্দিগঞ্জের দরিচর খাজুরিয়া নির্বাচনে নৌকা প্রতিক প্রত্যাশি আনোয়ার কুয়াকাটা পর্যটন নগরী উন্নয়নে বাঁধায় কতিপয় দুষ্কৃতিকারী -সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মেয়র আনোয়ার। চট্টগ্রাম কোর্ট বিল্ডিং (পরীর পাহাড়) এলাকা পরিদর্শনে প্রধান মন্ত্রীর মুর্খ্য সচিব বরিশালে ব্যাংক কর্মকর্তা হত্যার ঘটনায় আরো একজন ডাকাত সদস্য আটক চট্টগ্রামে সড়ক সংস্কারের দাবিতে মানববন্ধন
সিনেমা হল খোলার দাবিতে যা জানালেন তথ্যমন্ত্রী

সিনেমা হল খোলার দাবিতে যা জানালেন তথ্যমন্ত্রী

করোনা পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘ পাঁচ মাস থেকে দেশের সিনেমা হলগুলো বন্ধ রয়েছে। সিনেমা সংশ্লিষ্টরা হল খোলার দাবি জানালেও সরকারি কোনো নির্দেশনা না পাওয়ায় হলগুলো বন্ধই ছিল। হলগুলো খোলার ব্যাপারে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বরের পর সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার (২৭ আগস্ট) সচিবালয়ে চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক ও প্রদর্শক সমিতির নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে এ কথা জানান তথ্যমন্ত্রী। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ কুমার দাস সিনেমা হল খুলে দেওয়ার দাবি জানান। ওই দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সিনেমা হল খোলার বিষয়ে কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, দেশের সিনেমা হলগুলো খোলার ব্যাপারে আমি আপনারাদের সঙ্গে ইতোপূর্বেও আলোচনা করেছি। তবে করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের হার বিবেচনা করলে বিপদজনক সময়ের মধ্যেই আছি। এই পরিস্থিতিতে খোলাটা কতটুকু যৌক্তিক হবে সেটি একটি বড় প্রশ্ন।

তিনি আরো বলেন, আমি অনুরোধ জানাব, আগামী মাসের ১৫ তারিখ পর্যন্ত সবাই অপেক্ষা করুন। আমরা হলগুলোর খোলার বিষয়ে ১৫ তারিখের পর বসে সিদ্ধান্ত

হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট করে বলেছেন, সিনেমা হল যেগুলো বন্ধ আছে সেগুলোকে চালু করা এবং নতুন সিনেমা হল চালু করার লক্ষ্যে একটি দীর্ঘমেয়াদী সফট লোন দেওয়ার বিষয়ে তিনি সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে নির্দেশনা দেবেন। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট বলেছেন, আমি চাই দেশের প্রতিটি উপজেলায় একটি করে সিনেমা হল হোক।

বৈঠকে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *