Logo
নোটিশ :
সারাদেশের জেলা, উপজেলা, ক্যাম্পাসভিত্তিক প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগ: ০১৭০৭-৬৫৫৮৯৪    dailyekushershomoy@gmail.com
সংবাদ শিরনাম :
বরিশাল জেলা ফেব্রিকেটরস সভাপতি নিরব- সম্পাদক মেহেদী হাচান বিপুল ভোট এ জয় লাভ করে গ্রীন ভয়েস বরিশাল বিশ্বেবিদ্যালয়ের শাখার উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ। হিজলায় খাল বাধ দিয়ে মাছের ঘের নির্মাণ, বিপাকে কয়েক শত সাধারণ কৃষক ভাষাসৈনিক রেজাউল করিমের মৃত্যুতে নতুনধারার শোক হিজলায় গভীর নলকূপ থেকে হচ্ছে গ্যাস নির্গতঃ গ্রীন ভয়েস গৌরনদী উপজেলা শাখার উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ। বরিশালে করোনা সংক্রমন রোধে ডিসি জাকির হোসেনের মাস্ক বিতরণ মানারাত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করলেন বিএনএস সভাপতি মারুফ মল্লিক ইসি গঠনে নোংরামি করলে পতন নিশ্চিত – মোমিন মেহেদী প্রথমবার পিএসসি কোর্স সম্পন্ন করলেন ৩ পুলিশ কর্মকর্তা
তৈমুর আলম খন্দকারকে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টার পদ থেকে অব্যাহতি//

তৈমুর আলম খন্দকারকে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টার পদ থেকে অব্যাহতি//

অনলাইন ডেস্ক//

চেয়ারপারসনের উপদেষ্টার পদ থেকে অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আজ সোমবার বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।অব্যাহতির খবর জানেন কী না এমন প্রশ্নের জবাবে তৈমুর আলম খন্দকার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি বিভিন্ন মিডিয়া এবং সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিষয়টি জানলাম। আমার কাছে কোন চিঠি আসেনি। ঘটনা যাই হোক আমি দলীয় সিদ্ধান্তে খুশি। তারেক রহমান সাহেবকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। কারণ, আমি জনতার ও রিকশাওয়ালাগো তৈমুর ছিলাম, রিকশাওয়ালাগো তৈমুর হয়ে গেলাম। ঠেলাগাড়িওয়ালাগো ছিলাম।’দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টার পদ প্রত্যাহার করে নেওয়ার পর নির্বাচনে থাকছেন কিনা—এমন প্রসঙ্গে তৈমুর আলম বলেন, ‘এখনও আছি। গতবার তো দল আমাকে বসায়া দিসিলো। এখন আমার আর কোনও বাধা রইলো না। বসানোর জন্য ফোন করতে পারবে না।’নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির প্রভাবশালী এই নেতা বলেন, আমার ভাগ্যের মালিক একমাত্র আল্লাহ। অন্য কেউ আমার ভাগ্যের মালিক এটা বিশ্বাস করি না। আপনারা জানেন; আমি হকার, হোটেল শ্রমিক, খেটে খাওয়া মানুষের সংগঠন করি। এই সংগঠনগুলো সিটি করপোরেশন বা পৌরসভার সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত। তাদের দীর্ঘদিনের দাবি, আমি পৌরসভা বা সিটি করপোরেশনের দায়িত্ব নেবো।তিনি আরও বলেন, ২০১১ সালে দল নমিনেশন দিয়েছিল। তখন দল সিদ্ধান্ত দিয়েছিল সরে দাঁড়াতে। তাদের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে আমি নির্বাচন থেকে পাঁচ ঘণ্টা আগে সরে গেছি। আমি আজ পর্যন্ত দলকে প্রশ্ন করিনি, কেন আমাকে সরিয়ে দেয়া হল।দলের পদ হারানোয় নির্বাচনে কোনও প্রভাব পড়বে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, ‘না, না, কোনও প্রভাব পড়বে না। বরং যারা ভোটার তারা ভোট দিতে পারবে।’

নিউজটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *